Share with your friends
নাটকফাটক​

নাটকফাটক​ (১)

(রাত ৯টা, পরিচিত চায়ের দোকান, দুই যুবক)

১ম- কি হবে রে ভাই? বাবা মা তো কিছু বলছে না এখনও কিন্তু ২৩ তো হলো এবার ২৫ শে যাওয়ার সাথে সাথে…হয়তো মুখে কিছু বলবে  না কিন্তু ভাতের থালাটা দেওয়ায় বুঝিয়ে দেবে…কেমন ফাঁকা লাগে এখন…

২য়-মাঝে মাঝে মনে হয় সবছেড়ে পালাই…এই বোঝা বওয়া হবে না আর- বাকি ৫ জনের মতো নিশ্চিন্ত পরজীবী জীবন খুঁজতে বেরোই আর-

১ম- আর তখনই শিউরে উঠি অনুভূতিহীন যন্ত্রী কখনও কখনও অপরের দ্বারা চালিত যন্ত্র হয়ে বাঁচবো কি করে-যে মানুষের অনুভব হয় না সে তো মরেছে

২য়-হ্যাঁ মরুক ওই ভাবে বেঁচে থাকাটাই এদের কাছে সঠিক স্বাভাবিক উজ্জ্বল ভবিষ্যতে বাঁচা- প্রতিদিন নিজের স্বপ গুলোকে আগুনে পুড়িয়ে পুড়িয়ে প্রত্যেকটা দিন নিজেকে নিজের মনকে ইচ্ছেকে চিন্তার স্বাধীনতা টুকুকে ঝলসিয়ে চিবিয়ে খেয়ে ফেলাটাই এই সুসভ্যতার আলোকে সুউজ্জ্বল ভবিষ্যৎ…নাহ উফ কি ভয়ঙ্কর উজ্জ্বল ভবিষ্যত ঝলসে যাচ্ছে সব…

১ম-হম পালাবো না পালাবো না আর…স্বপ্ন দেখবো বাঁচবো ভীষণ দামি অনুভব গুলোকে নিভৃতে বাঁচিয়ে আগলে রাখবো আর পিঠ টা শক্ত করতেই হবে বোঝাটা বইতেই হবে ভাই

২য়-যুদ্ধের আয়োজন প্রস্তুত…উজ্জ্বল ভবিষ্যত গণ ১০ করলে আমাদের ২০ করতে হবে…কিন্তু আবেগের স্মৃতি আগলে শুধু তো চলবে না অর্থ…

১ম-হম অর্থ…(স্মিত হাসি)পোড়াবো না আর…

২য়-মগজাস্ত্রে জোর দাও থুড়ি দিমাগকি বাত্তি জ্বালাও…

দুজনে হাসে আঙুলের ফাঁকের ৫ টাকার পরিবর্ত দুটো নীচে পড়ে পায়ের প্রবল চাপে পিষতে থাকে।

                                                                      নাটকফাটক​  (২)

(ফোন বাজছে ক্লান্ত শরীরে ফোন টা ধরল একটি ছেলে খানিক বিরক্তি নিয়েই)

-হ্যালো

-সারাদিনে একবার খবর নেওয়ার প্রয়োজন মনে করিস না বল?

-মন…সেই জিনিসটাই তো নেই আমার…মন ভেঙে গেছে।

-কি খাওয়া হলো?

-জানিনা (অস্ফুট স্বর)

-হ্যালো? হ্যালো? কি খাওয়া হলো?

-খেয়েছি ওই তরকারি ভাত যা হয়।

-কি যে করছিস…কি যে হবে!

(একরাশ বিরক্তি নিয়ে ছেলেটি ফোন টি কেটে দেয়)

                                                                          নাটকফাটক​(৩)

-বল…এই বেরোলাম রিহার্সাল থেকে…আজ টানা…

-কখন থেকে ফোন করছি ৮.৩০ টায় তো হয়ে যায় তোর…রোজ ই এখন…ভাল লাগছে না ভীষণ টায়ার্ড…একটু কথা বলবো সময় ই থাকেনা এখন আমাদের…কখন থেকে বাইরে বসে আছি মশার কামড় খাচ্ছি এবার মা ডাকবে ঘরে যেতে হবে…আমরা কি এভাবে আর কতদিন পারবো সময় ই হয়না আমাদের এখন…একটু পাইনা তোকে!

-আরে কি করবো বল জানিসই তো উৎসব সামনে নতুন কাজ হচ্ছে এখন তো একটু চাপ চলবে সারাদিন টানা রিহার্সাল..ওখানে তো আর ফোন বের করে রাখতে পারিনা…একটু বোঝ।

-হ্যাঁ সেটাই তো তুই ব্যস্ত আমি ব্যস্ত দেখা হয়না কথাও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এভাবে হাঁপিয়ে উঠছি…সম্পর্কটায় আমি আর নিজে ভালো থাকতে পারছি না…বেশ একসাথে পড়তাম ঘুরতাম নিজেদের মতো সময় থাকতো…

-ছিল তো বল…এখন একটু চাপ চলছে সময়টা পেরিয়ে গেলেই আবার… তুই ও তো যখন জয়েন্টের জন্য পড়ছিলি তখন সারাদিন আমিও তো…

-সারাক্ষন তুলনা টানবি না ঋষি ভালো লাগেনা তুই একটুও বুঝিস না আমায়(ঋষি কিছু বলতে যায়…)না বুঝিস না- বুঝতে পারিস না…জানিস তো কলেজ এই সারাদিন ভালো থাকি এখন বেশ একসাথে আড্ডা পড়াশোনা…আমরা এখন সারাক্ষন ঝগড়া করি সময়টা বিভীষিকা হয়ে যায় মাঝে মাঝে…মরে যাচ্ছি আমি

-কিসব বলছো দিয়া তুমিই তো বলেছিলে সামনে কঠিন সময় আসবে আমাদের নিজেদের শক্ত হয়ে নিজেদের তৈরি করতে হবে একসাথে হাত ধরে আমরা ঠিক একদিন আকাশ ছোঁব…আমাদের ছোট্ট পৃথিবীটা…

-বড্ড বেশি ভেবেছিলাম হয়তো ওই অপরিণত বয়সের চটকে…এখন বুঝছি…আমি বড় হতে চাই ঋষি নিজের কাজ পড়াশোনা নিয়ে ভালো থাকতে চাই…তুই আমাকে বুঝিসনা আমাদের কাজ দুজনের দুরকম কিছুইনা বুঝিনা বুঝবো না …হয়না এভাবে। কলেজে সারাদিন মনি,সায়েদ,উর্মি,রাহুল আর এখন অনিরুদ্ধদাও আমাদের সাথে মিশে গেছে ভালো লাগে বেশ

-ওহ! আচ্ছা উৎসব টা মিটলে একদিন আমরা বার-বি-কিউ তে…

(নেটওয়ার্ক বিজি ফোন টা কেটে যায়)

                                                                        নাটকফাটক​ (৪)

পড়ন্ত বিকেল রক্তিম কমলা আলো বিছিয়ে আছে ছাদে দরজায় হেলান দিয়ে দূরে হাওড়া ব্রিজটার দিকে তাকিয়ে একটি ছেলে পেছনে এসে ধপ করে পিঠের ব্যাগ টা নামিয়ে ছাদে গিয়ে বিড়ি ধরে আর একটি ছেলে…

-এই কাজটাও ছেড়ে দিলাম।

-ছেড়ে দিলাম না ছাড়ালো?

-(ঘাড় ঘুরিয়ে একবার মাপল তারপর নিচের ঠোঁট টা কামড়ে বললো)ওই হলো…

-এভাবে চলবে?

-(হঠাৎ বিড়িটা ছুড়ে দিয়ে চিৎকার করে উঠলো) তো কি করবো? ওভাবে পারবোনা আর আমার এই দুপুর থেকে সন্ধে টা ফাঁকা চাই তবু দুপুরটা করছি কিন্তু বলেইছিলাম শো এর দিন গুলো ছাড়তে হবে এখন বলছে রোজ এ শো লেগে আছে আরে মাসে ৫ ৬ টা তো শো বড়জোর এদিকে শালা ডেট পাওয়া যায়না শো কমে যাচ্ছে আর ওদিকে ও বোকা…

-ঊঊ! মুখ সামলে রবি।

-(হালকা ঠোঁট ভ্যাংচায়)আর রাতে ডিউটি দিতে আর পারবো না শরীর ভাঙছে।

-আর কোথাও গেলি কাজ খুঁজলি?

-(খানিক অস্পষ্ট নিজের মনে বিড়বিড়)ভোরে বেরোনো যায় কিন্তু এতটা দূর সময়ে পৌঁছতে পারবোনা ফার্স্ট ট্রেন টা ধরা খুব ই চাপ আর যদি মিস করি গেল…বাকি গুলো টাকাটা বড্ড কম…

-এতদূর এ থাকবি সেখান থেকে এখানে আসবি তার একটা সময় এখানে কাজ এর সময় তারপর কাজের জায়গায় সময় পেরে উঠবি কি করে তুই? ভেবেছিস? কোনো পরিকল্পনা আছে তোর?  এভাবে হয় না আর গতানুগতিক চাকরি করে অন্তত

অরণ্যদার সাথে কাজ করা যাবে না বুঝিস নিশ্চয়ই…গাজয়ারী করে দুমদাম করিসনা একার ঘাড়ে সব ফেলে ভাবিস না সাহায্য না পরিকল্পনা করে নিজেকে তৈরি কর পরিবর্ত রাস্তা খুঁজতে হবে…নাহলে সব হারিয়ে বিড়িটুকুর সুখটানটাও যাবে আতাক্যালানে…ব্যবসার কথা বললাম সেখানেও তো এককথা বলে আর গেলি না…সত্যি করে বলতো অর্থনীতি তাকে অস্বীকার করে চলতে পারবি?

-জানিস সায়ন আমার ভয় করে…আমার দায়িত্ববোধ এ বোধহয় এখনো ফাঁকি ভীষণ…আকাশকুসুম এ ভাসছি।(বসে পড়ে দুহাত হাঁটুতে মাথা নিচু)

সায়ন আস্তে আস্তে ওর পেছনে এসে দাঁড়ায় কাঁধে হাত রাখে

-আছি তো আমরা…(দুজনের চোখ অস্তগামী সূর্যে স্থির…ঝুপ করে সন্ধে নামে যেন)

                                                                    নাটকফাটক​ (৫)

খাবার টেবিল একটি ছেলে খাচ্ছে একজন ভদ্রমহিলা  তরকারি সাজিয়ে দিচ্ছেন

-তুই কোনটায় ছিলি?

-বললাম তো সবকটাতেই

-ওওও। ওই বুঝি ব্যাক স্টেজে…

ছেলেটি চুপ

-সেদিন বান্ধবীরা মাকে নিয়ে হাসাহাসি করছিল বুঝি?

-(মুখ না তুলে খেতে থাকে)

-আচ্ছা ওইদিন কি হলো নাটকটায় শেষটা?

-(ছেলেটার চোখটা তীক্ষ্ণ হয়েই নিভে গেল)কেন তুমি ছিলে না?

-না আমি শেষ অবধি থাকতে পারি…আমার কি অফিস নেই?

-(দুম করে টেবিলে হাত রেখে) হ্যাঁ আছে তো নিশ্চয়ই আছে আমি কি বলেছি তোমায় যেতে ?কেন গেছিলে তুমি? আমায় কেন বলছো এখন…না আমার কোনো বন্ধু কোনো বান্ধবী তোমায় নিয়ে হাসেনি মা আর আমার সামনে এমন করার সাহস নেই কারো…ইনফিরিওরিটি কমপ্লেক্সে তুমি ভুগছো মা আর সেটার দায় আমার ওপর চাপিওনা আমি বলিনি যেতে … কেন গেছো? সেদিন থেকে এককথা কেন জিগেস করছো হ্যাঁ আমি সবকটাতেই ছিলাম যেভাবেই হোক তোমার ব্যঙ্গ নিয়েই হোক কিন্তু সমস্তটার ই অংশ ছিলাম সেটা তুমি যখন বিশ্বাস করোনা তোমার লজ্জা হয় লুকিয়ে যাও লুকিয়ে চলে আসো কারুর সাথে দেখাও করো না তখন কেন যাও…সবসময় কেন আমাকেই পিঞ্চ করা যখন আমার কাজ আমার স্বপ্নে বিশ্বাস ই করো না তখন বারবার কী হবে কী করছিস কেন…কেন থাকবে না কেন দেখবে না পুরোটা তুমি কক্ষনো ছুটি নাওনি একদিন না হয় রান্না না করে বাইরে খেতে একদিন ই তো এসেছিলে…আমি তো পরিশ্রম করছি মা ভেসে যাইনি স্বাধীন ভাবে কিছু অর্জনের চেষ্টা করছি কেন আমি আমার জীবনের বড় দিনগুলোতে তোমাদের পাবো না মা কেন এত একা অন্ধকারে রেখে দিলে আমি কি এতোই তোমাদের মুখ পোড়ানোর কাজ করলাম….কতদিন আমাদের একসাথে বসে খাওয়াটুকুও আর হয়নি…বাইরের লোক বাইরের মেকি স্ট্যাটাস গায়ে মাখতে গিয়ে সে আকাঙ্খায় ভাসতে গিয়ে ভিতরটা ঘুণ ধরে ঝুর ঝুর করে কখন খোখলা হয়ে গেল জানতেও পারলে না…

(আধখাওয়া ভাত ফেলে মুখ ধুয়ে ব্যাগ নিয়ে বেরিয়ে যায় রক্তিম)

                                                                       নাটকফাটক​(৬)

-তিনঘন্টা ধরে জার্নি করে এভাবে কতদিন পারবি সঞ্চিতা? কেন থিয়েটার করছিস আর করতেই হয়তো এখানে কেন?

-প্রথমটা যতদিন পারবো শুভ না পারলে নিশ্চয়ই অন্য পরিকল্পনা করবো।আর এখানে কেন সিম্পল লোকে ভালো ঊনিভার্সিটি ভালো কলেজ খোঁজে কেন ভালো ফ্যাকাল্টি শিখতে পারবে ভালো তাই তারপর এখানে এসে সব কেমন…

-আপন হয়ে গেল

(সায়ন রবি এসে দাঁড়ায়)

সায়ন-ভালোবাসার সযত্ন অভ্যাস হলো

রবি-দু চোখে রোজ স্বপ্ন নিয়ে শুতে যাওয়া শুরু হলো

(ছাদের এককোণে বসা রক্তিম বলে ওঠে)

-একসাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বাঁচা শুরু হলো

 পাশে বসা ঋষি ডুবে যাওয়া সূর্যের আলো ছুঁয়ে বললো

-একা নয় একসাথে একটা বড় স্বপ্ন দেখা শুরু হলো হাতে হাত ধরে…সত্যি।

(ওদের সবার পেছনে দরজায় প্রায় অন্ধকারে দাঁড়িয়েছিল সেই দুই বন্ধু)

১ম-দেখ ওরা বিশ্বাস রাখে এতকিছুর শেষেও….একটা স্বাধীন সত্য অনুভবের জীবন ডাকছে তীব্র জীবন্ত স্বপ্নের গান শুনছি…অস্তগামী সূর্যের শ্যামশস্য হিল্লোলে রেখে যাবো এই বাণী…

২য়-আমি আনন্দিত।

0

35 thoughts on “নাটকফাটক​ – A short Bengali drama.”

  1. Hello are using WordPress for your blog platform?
    I’m new to the blog world but I’m trying to get started
    and create my own. Do you require any html coding
    expertise to make your own blog? Any help would be greatly appreciated!

    my web site ClaraRPeed

    0
  2. My spouse and I stumbled over here by a different
    page and thought I might check things out.
    I like what I see so i am just following you.
    Look forward to looking into your web page repeatedly.

    0
  3. I’m not sure exactly why but this site is loading very slow for me.
    Is anyone else having this issue or is it a issue on my end?
    I’ll check back later and see if the problem still exists.

    0
  4. Just desire to say your article is as astonishing.
    The clearness to your submit is simply nice and that i can suppose you are an expert
    in this subject. Well along with your permission allow me
    to grab your RSS feed to keep updated with impending post.
    Thank you a million and please continue the enjoyable work.

    0
  5. Hi there, just became alert to your blog through Google, and found that
    it is really informative. I am going to watch out for brussels.

    I will be grateful if you continue this in future. A lot of people will
    be benefited from your writing. Cheers! cheap flights
    y2yxvvfw

    0
  6. hey there and thank you for your information – I’ve definitely picked up
    anything new from right here. I did however expertise several technical points using this site, since I experienced to reload the web site many times previous to I could
    get it to load properly. I had been wondering if your hosting is
    OK? Not that I am complaining, but slow loading instances times will sometimes affect
    your placement in google and could damage your high-quality score if ads and marketing with Adwords.

    Well I’m adding this RSS to my email and could look
    out for a lot more of your respective exciting content.
    Make sure you update this again soon.

    0
  7. hello!,I love your writing so much! share we be in contact more approximately
    your article on AOL? I need an expert in this space to solve my problem.
    Maybe that’s you! Taking a look ahead to peer you.
    y2yxvvfw cheap flights

    0
  8. I’ve been exploring for a little bit for any high-quality
    articles or weblog posts in this sort of area . Exploring in Yahoo I ultimately
    stumbled upon this website. Studying this info So i’m satisfied to express that
    I’ve an incredibly just right uncanny feeling I found out just what I needed.
    I most certainly will make certain to don?t omit this site and provides it a glance on a constant basis.
    yynxznuh cheap flights

    0
  9. magnificent points altogether, you simply received a new
    reader. What might you recommend about your post that you simply made some days ago?
    Any sure? 34pIoq5 cheap flights

    0
  10. Excellent article. Keep writing such kind of info on your site.
    Im really impressed by your blog.
    Hello there, You have done an incredible job. I will certainly digg it and in my opinion recommend to my friends.
    I’m sure they will be benefited from this website. 34pIoq5 cheap
    flights

    0
  11. Generally I don’t learn article on blogs, but I wish to say that this write-up very forced
    me to try and do it! Your writing taste has been surprised
    me. Thank you, very nice post.

    0
  12. Hiya! I know this is kinda off topic however I’d figured
    I’d ask. Would you be interested in exchanging links or
    maybe guest authoring a blog article or vice-versa?
    My blog discusses a lot of the same subjects as yours and I feel we
    could greatly benefit from each other. If you might be interested feel free to shoot me an e-mail.
    I look forward to hearing from you! Terrific blog by the way!

    0
  13. Can I simply just say what a comfort to uncover an individual who truly knows what they are talking about on the net.
    You actually understand how to bring a problem to light and make
    it important. More and more people really need to look at this and understand this side of the story.
    I was surprised that you’re not more popular given that you certainly possess the
    gift.

    0

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *